বিশ্ববিদ্যালয় আগে খুলে দেওয়া উচিত: ডা. এবিএম আবদুল্লাহ

সময় ট্রিবিউন | ১২ আগস্ট ২০২১ ১৪:০৮ আপডেট: ২৬ অক্টোবর ২০২১ ০৯:২৮

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ব্যক্তিগত চিকিৎসক ডা. এবিএম আবদুল্লাহ-ফাইল ছবি

আগামী মাসে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার চিন্তা-ভাবনা করছে সরকার। আর তাই সবার আগে বিশ্ববিদ্যালয় আগে খুলে দেওয়া উচিত মনে করেন মেডিসিন বিশেষজ্ঞ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ব্যক্তিগত চিকিৎসক ডা. এবিএম আবদুল্লাহ।

তিনি বলেন, এটা ভালো উদ্যোগ বলে আমি মনে করি। তবে দেশের সমস্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান একযোগে না খুলে পর্যায়ক্রমে খোলা উচিত। বড়দের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান আগে, তারপরে ছোটদেরগুলো খোলা উচিত। কারণ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের অনেকে ইতিমধ্যেই টিকা নিয়েছেন, বাকিদেরও দ্রুত সময়ের দেওয়ার প্রক্রিয়া চলছে।

তিনি আরও বলেন, বয়সে বড় শিক্ষার্থীরা স্বাস্থ্যগত বিষয়গুলো বোঝে। তারা নিজেদের সুরক্ষার ব্যবস্থা নিজেরাও করতে পারে। এ জন্য বিশ্ববিদ্যালয়গুলো আগে খুলে দেওয়া উচিত। বিশ্ববিদ্যালয় খোলার পর কলেজগুলো খোলা উচিত। তারপর পরিস্থিতি দেখে প্রথমে মাধ্যমিক বিদ্যালয় এবং সবশেষে প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলো খুলে দেওয়া যেতে পারে।

ডা. এবিএম আবদুল্লাহ বলেন, ছোটরা অনেক কিছুই বোঝে না, নিজেদের সুরক্ষার ব্যবস্থাও নিজেরা করতে পারে না। এ জন্য তাদের স্কুলগুলো পরে খোলা উচিত। কিন্তু প্রতিটি ক্ষেত্রেই স্বাস্থ্যবিধি কঠোরভাবে মানতে হবে।

তিনি বলেন, যারা হলে বা হোস্টেলে থাকবে সেসব জায়গায় যেন আগে থেকেই স্বাস্থ্যবিধি এবং সামাজিক দূরত্ব মানার ব্যবস্থা করা হয়। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো যেন আগে থেকেই জীবাণুমুক্ত করা হয়। এগুলো না করে সবকিছু খুলে দিলে শিক্ষার্থীরা বিপদে পড়তে পারে।

তিনি আরও বলেন, যত দ্রুত সম্ভব শিক্ষার্থী, শিক্ষক ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সব কর্মকর্তা-কর্মচারীকে টিকা দিয়ে ফেলতে হবে। টিকা দিলে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা নিয়ে আর কোনো ভয় থাকবে না।

জনস্বাস্থ্য এ বিশেষজ্ঞ বলেন, ক্লাসরুমে শিক্ষকের সামনে বসে পড়াশোনার যে সুন্দর পরিবেশ তৈরি হয়, অনলাইনে সেটা সম্ভব নয়। এর সঙ্গে মনস্তাত্ত্বিক বিষয়ও জড়িত। তবে অনলাইন এবং সরাসরি বিদ্যালয়ে গিয়ে পাঠদান দুটোরই ব্যবস্থা রাখা যেতে পারে।




আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


Top