আফগানিস্তানে হতাহতের সংখ্যা বেড়েছে ৪৭ ভাগ: জাতিসংঘ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | ২৭ জুলাই ২০২১ ১২:২৫ আপডেট: ২৭ জুলাই ২০২১ ১২:২৬

ছবি: ইন্টারনেট

আফগানিস্তানে ২০২১ সালের প্রথম ছয় মাসে হতাহত নারী ও শিশুর সংখ্যা আশঙ্কাজনক হারে বেড়েছে। যা আগের বছরের তুলনায় শতকরা ৪৭ ভাগ। এক বিবৃতিতে হুঁশিয়ার করে এ তথ্য জানিয়েছেন জাতিসংঘ।

বলা হচ্ছে, যুদ্ধপীড়িত দেশটিতে চলতি বছরে অতীতের যেকোনো বছরের তুলনায় সর্বোচ্চ সংখ্যক বেসামরিক মানুষ হতাহত হওয়ার আশঙ্কা তৈরি হয়েছে।

ভয়েস অব আমেরিকা এক প্রতিবেদনে জানায়, আফগানিস্তানে জাতিসংঘ মিশনের অর্ধ বাৎসরিক রিপোর্ট অনুযায়ী বছরের প্রথম ভাগে প্রায় ৫ হাজার ২০০ মানুষ হতাহত হয়েছে, যার মধ্যে প্রাণ হারিয়েছে ১ হাজার ৬৫৯ জন। ২০২০ সালে একই সময়কালের তুলনায় এই সংখ্যা ৪৭ শতাংশ বেশি।

রিপোর্টে বলা হয়, মে মাসে যুক্তরাষ্ট্র ও মিত্র বাহিনী আনুষ্ঠানিকভাবে প্রত্যাহার শুরু হওয়ার পর থেকে সরকারি বাহিনী ও তালিবানদের হামলা দেশজুড়ে বৃদ্ধি পায় এবং বেসামরিক নাগরিক হতাহতের সংখ্যা বেড়ে যায়।

দুঃখ প্রকাশ করে বলা হয়, ২০২১ সালের প্রথম ৬ মাসে হতাহত বেসামরিক ব্যক্তিদের প্রায় অর্ধেকই নারী ও অপ্রাপ্তবয়স্ক।

রিপোর্টে হুঁশিয়ারি দিয়ে বলা হয়, আফগানিস্তানে সহিংসতা যথেষ্ঠ প্রশমিত না হলে, দেশটিতে কোনো এক বছরে বেসামরিক মানুষের সর্বোচ্চ সংখ্যক হতাহত হওয়ার রেকর্ড হতে পারে।

এ দিকে আগস্টের মধ্যে আফগানিস্তান থেকে সব মার্কিন সেনা দেশে ফিরে যাবে। এরই মধ্যে দেশটির অর্ধেক অঞ্চল চলে গেছে তালেবানদের দখলে। এ পরিস্থিতিতে আবারও শুরু হয়েছে মার্কিন বিমান হামলা।

 




আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


Top