চুল কর্তন: শিক্ষক ফারহানার বিরুদ্ধে অভিযোগের সত্যতা পেয়েছে তদন্ত কমিটি

সময় ট্রিবিউন | ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২১ ১৬:০৩

ফারহানা ইয়াসমিন বাতেন। ছবি- সময় ট্রিবিউন  

১৪ ছাত্রের চুল কেটে দেওয়ার অভিযোগে সিরাজগঞ্জের রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য ও বাংলাদেশ অধ্যয়ন বিভাগের শিক্ষক ফারহানা ইয়াসমিন বাতেনের বিরুদ্ধে খারাপ আচরণের একাধিক অভিযোগের সত্যতা পেয়েছে তদন্ত কমিটি।

তদন্তে গঠিত কমিটির প্রধান রবীন্দ্র অধ্যয়ন বিভাগের চেয়ারম্যান লায়লা ফেরদৌস হিমেল এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, চুল কেটে দেওয়া ছাড়াও শিক্ষার্থীদের ব্যক্তিগত আক্রমণ করা এবং তাদের সঙ্গে খারাপ আচরণের একাধিক অভিযোগ আমরা পেয়েছি। তাঁর বিরুদ্ধে শুধু একটি বিভাগের অভিযোগ নয়, সব বিভাগেরই অভিযোগ আছে। জুতার শব্দ হলেও তিনি শিক্ষার্থীদের শাসন করেন বলে অভিযোগ এসেছে। সব অভিযোগ তদন্ত করা হচ্ছে। দ্রুত সময়ের মধ্যেই বিষয়গুলো জানা যাবে।

সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য ও বাংলাদেশ অধ্যয়ন বিভাগের একাধিক শিক্ষার্থীর অভিযোগ, তিনি ক্ষমতার দাপট দেখাতেন। শিক্ষার্থীদের পারিবারিক অবস্থার প্রসঙ্গ তুলে তুচ্ছ-তাচ্ছিল্য করতেন। চুল কেটে দেওয়ার অপমান সহ্য করতে না পেরে গত সোমবার রাতে বিভাগের ছাত্র নাজমুল হাসান অতিমাত্রায় ঘুমের ওষুধ খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন।

এসব বিষয়ে জানতে চাইলে অভিযুক্ত ফারহানা ইয়াসমিন চুল কাটার বিষয়টি অস্বীকার করেন। তবে তিনি বলেন, ‘আমার একটু রাগ আছে। পরীক্ষার জন্য, পড়ালেখার জন্য আমি শিক্ষার্থীদের একটু একটু বকাঝকা করি। কিছু ছাত্র আমার কাছে এসে পরীক্ষা পিছিয়ে দিতে বলেছিল। আমি এতে রাজি হইনি। হয়তো সেই রাগে এ ধরনের অপপ্রচার চালাচ্ছে।’




আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


Top