সোমবার, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৮, ০৬:৩১ অপরাহ্ন

সমাবর্তনের দাবিতে জবির শিক্ষার্থীর খোলা চিঠি

সমাবর্তনের দাবিতে জবির শিক্ষার্থীর খোলা চিঠি

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) শিক্ষার্থীদের বহুল প্রত্যাশিত এক নাম ‘সমাবর্তন’। এ বিশ্ববিদ্যালয়ে সমাবর্তনের প্রয়োজনীয়তা  জানিয়ে  খোলা চিঠি   লিখছেন ইতিহাস বিভাগের ষষ্ঠ ব্যাচের মেধাবী ছাত্র ও শাখা ছাত্রলীগের ১নং সাংগঠনিক সম্পাদক  মোঃইব্রাহীম ফরাজী।

বিশ্ববিদ্যালয় হচ্ছে জ্ঞান সৃষ্টি,চর্চা,লালন ও বিতরণকেন্দ্র।একটি পূর্ণাঙ্গ ও কার্যকর বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন শিক্ষা ও সংস্কৃতি সম্পর্কিত আয়োজনের মধ্যে “সমাবর্তন” অনুষ্ঠান এক অনবদ্য সংযোজন।

সমাবর্তন নামক শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের এই বহুল প্রত্যাশিত মিলনমেলায় স্নাতক ডিগ্রি অর্জনকারী কৃতী বিদ্যারোহীদের সনদ ও পদক প্রদান করে তাদেরকে জীবনের পরবর্তী ধাপসমূহে ধনে-মানে-জ্ঞানে প্রতিষ্ঠিত হওয়ার জন্য এক অতুলনীয় অনুপ্রেরণাময়ী ভিত্তি স্থাপন করে বিশ্ববিদ্যালয়ের অভিভাবক স্বরূপ প্রশসন।

ঢাকার সদরঘাটে বুড়িগঙ্গার তীর ঘেঁষে সহস্র প্রাপ্তি-অপ্রাপ্তির বেড়াজালে চলমান জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি) একটি পূর্ণাঙ্গ ও স্বায়ত্বশাসিত বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে এর অগ্রযাত্রার এক যুগের পর আরও এক বছর অতিক্রান্ত হলেও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান হিসেবে এটি এটি বেশ পুরাতন ও ঐতিহ্যবাহী (১৮৫৮)।

অল্পতে তুষ্ট থেকে বিসিএস,ব্যাংকজব সহ বহুমূখী প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষায় এ বিদ্যাপীঠের বিদশিক্ষার্থীরা যথার্থ প্রমাণ দিতে সক্ষম হয়েছে।বাংলাদেশের তৃণমূল থেকে আগত জ্ঞা্নপিপাসু শিক্ষার্থীরা একটি স্বচ্ছ ভবিষ্যত গড়ার প্রত্যয়ে ভর্তিযুদ্ধ অতিবাহিত করে এক যাযাবর জীবন-যাপন করে এই অনাবাসিক বিশ্ববিদ্যালয়ে। তা সত্ত্বেও, কেবল মেধার উপর ভিত্তি করেই প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষাগুলোর প্রায় সর্বক্ষেত্রে এই নবীন বিশ্ববিদ্যালয়টির অবস্থান রানার আপের।

মানবসম্পদের কোন সংকট না থাকলেও অন্যান্য প্রাতিষ্ঠানিক ও অবকাঠামোগত সমস্যা আর নিপীড়নে জর্জড়িত জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়। বর্তমানে উক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ে ১১৫ জন এর অধিক মেধাবী ও তরুণ শিক্ষক পিএইচডি ও উচ্চতর ডিগ্রি অর্জনের জন্য উত্তর আমেরিকা,কোরিয়া, অস্ট্রেলিয়া, চীন, জাপানসহ পৃথিবীর নানা দেশে অধয়নরত আছেন।

অথচ আজ প্রশাসনের অদক্ষতায় শিক্ষার্থীদের অতি দুর্ভাগ্য এবং ইউজিসি ও বাংলাদেশের শিক্ষাব্যবস্থার জন্য লজ্জাকর পরিস্থিতি এই যে দীর্ঘ ১৩ টি বছরে কখনও এই বিদ্যাপীঠে সমাবর্তন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয় নি। সচেতন ও সোচ্চার শিক্ষার্থীবৃন্দ বিভিন্ন সময়ে তাদের ন্যায্য অধিকার আদায়ে সংঘবদ্ধ হলে উদাসীন প্রশাসন নিয়ন্ত্রকবৃন্দ শুধু বিভিন্ন অন্ধ অজুহাতে কালক্ষেপন করছেন। অনতিবিলম্বে সাধারন শিক্ষার্থীদের দাবি মেনে নিয়ে তা বাস্তবায়ন করে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় তথা বাংলাদেশের শিক্ষার সুষ্ঠু পরিবেশ বজায় রাখা হোক



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

China Scholarship bd

Somoy-Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis. © All rights reserved  2018 somoytribune.com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com